1. admin@sylhetbhumi24.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৮ অপরাহ্ন
নোটিশ :
দুবাই প্রবাসী আশিকের বিশাল সিন্ডিকেট  নারী পাচার, অবৈধ স্বর্ণ ও হোন্ডি ব্যবসা করে রাতারাতি কোটিপতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা মনিটরিং করছে পুলিশ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ শরিফ উদ্দিন এর নির্দেশনা শারদীয় দুর্গাপূজা নিরাপত্তায় প্রধান করছে আনসার ভিডিপি মো:ইমরান হোসেন শ্রীমঙ্গলে প্রতিমা বিসর্জন এর মাধ্যমে শেষ হল দুর্গাপূজা আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মাহবুব মিয়ার সমর্থনে জনতার ঢল হুমায়ুন রশিদ চত্তর থেকে ০৩ ছিনতাইকারী গ্রেফতার শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচনে নৌকার পালে হাওয়া শিক্ষাক্ষেত্রে এখনও আমরা পিছিয়ে আছি : জগন্নাথপুরে পরিকল্পনামন্ত্রী কিশোরী পান্নাকে স্ত্রীর মতো ভোগ করতেন মোবাশ্বির, ক্ষোভ থেকে খুন! সাইবার ট্রাইব্যুনালে গোলাপগঞ্জের হাসিনা আহাদসহ আসামী ৪
শিরোনাম :
দুবাই প্রবাসী আশিকের বিশাল সিন্ডিকেট  নারী পাচার, অবৈধ স্বর্ণ ও হোন্ডি ব্যবসা করে রাতারাতি কোটিপতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা মনিটরিং করছে পুলিশ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা মোঃ শরিফ উদ্দিন এর নির্দেশনা শারদীয় দুর্গাপূজা নিরাপত্তায় প্রধান করছে আনসার ভিডিপি মো:ইমরান হোসেন শ্রীমঙ্গলে প্রতিমা বিসর্জন এর মাধ্যমে শেষ হল দুর্গাপূজা আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মাহবুব মিয়ার সমর্থনে জনতার ঢল হুমায়ুন রশিদ চত্তর থেকে ০৩ ছিনতাইকারী গ্রেফতার শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাচনে নৌকার পালে হাওয়া শিক্ষাক্ষেত্রে এখনও আমরা পিছিয়ে আছি : জগন্নাথপুরে পরিকল্পনামন্ত্রী কিশোরী পান্নাকে স্ত্রীর মতো ভোগ করতেন মোবাশ্বির, ক্ষোভ থেকে খুন! সাইবার ট্রাইব্যুনালে গোলাপগঞ্জের হাসিনা আহাদসহ আসামী ৪

শিশু মারুফকে ‘জিনে’ মেরে ফেলেছে!

সিলেটভুমি ডেস্ক
  • সময় : শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ১০৭ ৯৮ বার পঠিত

রাজশাহীর বাগমারায় সাত বছরের শিশু মারুফ হাসানের মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। মারুফের বাবা ও সৎ মায়ের দাবি তাকে জিনে মেরে ফেলেছে। তবে মারুফের নিজের মায়ের অভিযোগ তার সন্তানকে মেরে ফেলে সৎ মা ও তার বাবা।

শুক্রবার দুপুরে লাশ দাফনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় পুলিশ পৌঁছে মারুফের লাশ ময়না তদন্তের জন্য রামেক মর্গে পাঠিয়েছেন। ঘটনাটি শুভডাঙ্গা ইউনিয়নের বিনোদপুর গ্রামের।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, মারুফের বাবা শাজাহান দিনমজুর। প্রথম স্ত্রী মারা গেলে মারুফের মা মারুফা বেগমকে বিয়ে করেন। মারুফের জন্মের তিন বছর পর শাজাহানের সঙ্গে মারুফার বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর থেকে শিশু মারুফ সৎ মা মুক্তা খাতুন ও তার বাবার কাছেই থাকত।

এলাকাবাসী আরও জানায়, শুক্রবার সকালে শাজাহান কাজে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর মারুফের সৎ মা স্বামীকে ফোনে জানায়, মারুফ অস্বাভাবিক আচরণ করছে। পরে পার্শ্ববর্তী কবিরাজের কাছ থেকে পানি পড়া এনে খাওয়ায়।

সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মারুফ মারা যায়। এরপর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মারুফকে কাফন পরিয়ে দাফনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

এ সময়ে পুলিশ নিয়ে ছুটে আসেন মারুফের আপন মা মারুফা বেগম। তিনি লাশ দাফনে বাধা দিয়ে অভিযোগ করেন, তার ছেলেকে তার বাবা ও সৎ মা মিলে মেরে ফেলেছে। ফলে পুলিশ মারুফের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

বাগমারা থানার এসআই রিপন কুমার বলেন, মারুফের বাবা, সৎ মাসহ প্রতিবেশীরা বলেছেন, মারুফ প্রায়ই অস্বাভাবিক আচরণ করত। তার ওপর জিনের আছর ছিল। অচেতন হয়ে পড়ত মাঝে মাঝে। তার আপন মায়ের অভিযোগ পেয়ে লাশের ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঘটনাটি পুলিশ খতিয়ে দেখছে।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
🔻 আরও পড়ুন