একই সময়ে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে ৩ হাজার লোক।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট কার্যালয়ের কোভিড-১৯ কোয়ারেন্টিন ও আইসোলেশনের দৈনিক প্রতিবেদন পর্যালোচনায় এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, প্রথম মৃত্যুর পর থেকে সিলেট বিভাগে গত ১৯ জুলাই সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনায় মৃত্যু হয়েছিলো মোট ৫২৯ জনের। ১৯ জুলাই (সোমবার) সকাল ৮টা পর্যন্ত সে সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৫৭৮-এ। মাত্র ৭ দিনে সিলেটে করোনায় প্রাণ হারালেন ৪৯ জন।

অপরদিকে, গত ১৯ জুলাই সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হন ২৯ হাজার ৯১৮ জন। আর ১৯ জুলাই (সোমবার) সকাল ৮টা পর্যন্ত সে সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ৩৩ হাজার ৫২১ জনে। এই মাত্র ৭ দিনে সিলেট অঞ্চলে করোনা রোগী শনাক্ত হন ৩৬ হাজার ৬ জন।

চলতি মাসেই সিলেটে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের ক্ষেত্রে একের পর এক ভাঙছে পুরাতন রেকর্ড, মৃত্যু ও রোগীর তালিকায় যোগ হচ্ছে নতুন সর্বোচ্চ সংখ্যা।

এ মাসেই একদিনে ৩ বার ৯ জন করে এবং একবার সর্বোচ্চ ১২ জনের মৃত্যু হয় সিলেটে। এছাড়াও ৬৮১ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়ে এ ক্ষেত্রে তৈরি হয় নতুন রেকর্ড।

এ পরিস্থিতিতেও সিলেট হাট-বাজার এবং মার্কেটগুলোতে মানুষের গাদাগাদি অবস্থা। বালাই নেই স্বাস্থ্যবিধির। বেশিরভাগ মানুষের মুখে নেই মাস্ক। যাদের আছে তাদের বেশিরভাগেরই মাস্ক থাকে থুতনিতে।

ঈদুল আযহার পরে সিলেটের অবস্থা আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা।