1. admin@sylhetbhumi24.com : admin :
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে ৫ প্রতিষ্টানে জরিমানা শ্রীমঙ্গল লোকনাথ মন্দিরে শীত বস্ত্র বিতরণ কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া বন থেকে মানবদেহের কঙ্কাল উদ্ধার কমলগঞ্জে ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে অনিয়মের দায়ে ৪ প্রতিষ্টানকে জরিমানা শ্রীমঙ্গলে স্কুলছাত্রের উপর হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন মৌলভীবাজারে ট্রাফিক পুলিশের জন্য ব্যারাকের উদ্বোধন মৌলভীবাজারে ফিরছে করোনা, নতুন করে আক্রান্ত ২৯ জন কমলগঞ্জে জলাশয় থেকে নারীর মৃতদেহ উদ্ধার বিশ্বভালবাসা দিবসে আসছে চৌধুরী কামাল ও সালমার দ্বিতীয় ভার্সন প্রাণনাথ-২ জাতীয় সংসদে সভাপতিমন্ডলীর তালিকায় প্রথমস্থানে উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপি
শিরোনাম :
মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে ৫ প্রতিষ্টানে জরিমানা শ্রীমঙ্গল লোকনাথ মন্দিরে শীত বস্ত্র বিতরণ কমলগঞ্জের লাউয়াছড়া বন থেকে মানবদেহের কঙ্কাল উদ্ধার কমলগঞ্জে ভোক্তা অধিদপ্তরের অভিযানে অনিয়মের দায়ে ৪ প্রতিষ্টানকে জরিমানা শ্রীমঙ্গলে স্কুলছাত্রের উপর হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন মৌলভীবাজারে ট্রাফিক পুলিশের জন্য ব্যারাকের উদ্বোধন মৌলভীবাজারে ফিরছে করোনা, নতুন করে আক্রান্ত ২৯ জন কমলগঞ্জে জলাশয় থেকে নারীর মৃতদেহ উদ্ধার বিশ্বভালবাসা দিবসে আসছে চৌধুরী কামাল ও সালমার দ্বিতীয় ভার্সন প্রাণনাথ-২ জাতীয় সংসদে সভাপতিমন্ডলীর তালিকায় প্রথমস্থানে উপাধ্যক্ষ ড. মো. আব্দুস শহীদ এমপি

ফ্ল্যাট বাড়ীর স্বপ্ন দেখিয়ে দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ জিরো থেকে হিরো মাহমুদ ও কালাম

প্রশাসন
  • সময় : শনিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২১
  • ৯৩৭ ৯৮ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিবেদকঃ স্বপ্ন দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা আয়,রাতারাতি কোটি কোটি টাকার মালিক। কৌশল দুধে ধোয়া তুলশি পাতার মতো পরিস্কার। ফ্ল্যাট বাড়ীর স্বপ্ন দেখিয়ে দেড় কোটি টাকা আত্মসাৎ জিরো থেকে হিরো মাহমুদ হোসেন ও আবুল কালাম।বাস্তবে কিছুই নেই, এ সব ঘটনা সিলেটে হর হামেশাই ঘটছে আর পার পেয়ে যাচ্ছেন অপরাধীরা। এমন একজন ভোক্তভোগী লন্ডন প্রবাসী ইব্রাহীম আলী।

সিলেট গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর গ্রামের মাহমুদ ও আবুল কালাম দুজন মিলে লন্ডন প্রবাসী ইব্রাহীম আলীকে স্বপ্ন দেখিয়ে দেড় কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। মাহমুদ ও কালাম সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে আজ দিশেহারা লন্ডন প্রবাসী ইব্রাহীম। ৩টি ফ্ল্যাট বাড়ির মালিক হবেন এমন আশায় আত্মীয় সজন বন্ধুবান্ধবদের কে নিয়ে প্রবাসে রক্তঝরানো উপার্জনের টাকা দিয়ে আজ নিঃস্ব।ফ্ল্যাট তো পাওয়া দুরের কথা টাকা চাইলে প্রাণনাশের হুমকি-ধুমকি চলছে।কিসের টাকা তুমি টাকা পাওনা,টাকা পাইলে লইলাও।

মামলার তথ্য সূত্রে জানা যায়, সিলেটর গোলাপগঞ্জ উজেলার ভাদেশ্বর নালীউরি গ্রামের হাজী মোক্তাদীর আলীর ছেলে মাহমুদ হোসেন ও ভাদেশ্বর দক্ষিণ ভাগের মৃত ফরমুজ আলীর ছেলে আবুল কালাম দুজনে মিলে লন্ডন প্রবাসী ইব্রাহীম আলীকে……….ঢাকা.উত্তরায় জায়গা কিনে ফ্লাট বাড়ীর ব্যবসা করিবে এবং ৩টি ফ্লাট তাহার নামে দিবেন বলে উৎসাহ প্রদান করে ১ কোটি পঞ্চাশ লক্ষ টাকা প্রতারনা করে হাতিয়ে নেন।

এ ঘটনাটা ঘটে ১৫ই জুন ২০১০ইং তারিখে।
এ বিষয়ে মাহমুদ ও কালামের বিরুদ্ধে মাননীয় মেট্রোপলিটন ১ম আদালত মামলা করেন ইব্রাহিমের খালাতো ভাই ফজলুল ইসলাম ফজলাই।
মামলা নং ৩৭৯/২০১৯ শাহপরান সি আর দরখাস্ত মামলা।
মামলার তথ্য সূত্রে আরো জানা যায়, সিলেট নগরীর গার্ডেন টাওয়ারের বাসিন্দা মৃত ইজ্জাদ আলীর ছেলে ফজলুল ইসলাম ফজলাই মনানীয় মেট্রোপলিটন আদালত সিলেটে মাহমুদ হোসেন ও আবুল কালামের বিরুদ্ধে মামলা করেন।মামলার অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন,
ইব্রাহীম আলী আমার খালাতো ভাই তিনি লন্ডন প্রবাসী তাহার দেশে কিছু ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তার অবর্তমানে আমি ম্যানাজার হিসাবে দেখাশুনা করি।
আসামী মাহমুদ ও আবুল কালাম লন্ডন প্রবাসী আমার পূর্বের পরিচিত। এই পরিচিতির জের ধরে মাহমুদ ও কালাম, আমার খালাতো ভাই ইব্রাহিমের কাছে প্রস্তাব করেন ঢাকা উত্তরায় জমি কিনে ফ্লাট বাড়ীর ব্যবসা করিবেন।উৎসাহ প্রদান করেন ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করিলে ৩টি ফ্ল্যাট তাদের নামে দিয়ে দিবেন। তাদের কথায় সরল বিশ্বাসে রাজী হয়ে স্বাক্ষীগণের উপস্থিতিতে বিভিন্ন তারিখে মাহমুদ ও কালামকে ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা প্রদান করেন আমার খালাতো ভাই ইব্রাহিম ।
সূত্র প্রা: লি: এর নামে কিংবা তাদের ব্যবসায়ী অংশিদার, আমিরুল ইসলাম ও আব্দুল কাইয়ুম এর নামে মাহমুদের নির্দেশনায় বিভিন্ন তারিখে টাকাগুলি প্রদান করেন।
২ থেকে ৩ বৎসরের মধ্যে ৩টি ফ্ল্যাট সমজাইয়া দিবার কথা থাকলেও ২০১০ থেকে ২০২১ সালের মধ্যেও ফ্ল্যাটের কোন অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি।
এ ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে মাহমুদ ও কালাম নতুন ফন্দি আটে। ফ্ল্যাটের জন্য যে জায়গা ক্রয় করা হয়েছিল তার মালিকানা সম্পর্কে ঝামেলা হওয়ায় বর্তমানে হোটেল ব্যবসা করিব এবং পরবর্তীতে ফ্ল্যাট হস্তান্তর করিব মর্মে মাহমুদ ও কালাম হোটেল ব্যবসার একটি চুক্তিনামা প্রদান করেন।
এতে বাদীর খালাতো ভাই ইব্রাহিম রাজী না হয়ে টাকা ফেরৎ চাইলে আসামী মাহমুদ ও কালাম জমি ক্রয় করিতে লোকসান হয়েছে। অন্য একটি জমি ক্রয় করে ফ্ল্যাট হস্তান্তর করিবে বলে ইব্রাহিমকে জানায়। ইব্রাহিম আলী তাদের কথায় বিশ্বাস করে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন তারিখে দেড় কোটি টাকা প্রদান করেন। প্রতারণামূলক ভাবে মাহমুদ ও কালাম ইব্রাহিমকে স্বপ্ন দেখিয়ে সমুদয় টাকা আত্মসাৎ করেছেন।
এ বিষয়ে লন্ডন প্রবাসী ইব্রাহিম আলী বলেন মাহমুদ ও কালাম আমার পৃর্বের পরিচিত তাদের কথা বিশ্বাস করে আমি ব্যবসা করার জন্য আমার আরো দুই বন্ধুকে নিয়ে তাদেকে টাকা দেই তারা প্রতারণা করে আমাকে ধোঁকা দিয়ে ব্যবসার নাম করে আমার টাকা আত্মসাৎ করছে আমি এর সঠিক বিচারের আশায় আইনের দ্বারস্থ হলাম
চলবে,,,,,,।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
🔻 আরও পড়ুন